ব্যাংকে চাকরি দেয়ার নামে অর্থ আত্মসাৎ, গ্রেপ্তার ৩

ব্যাংকে চাকরি দেয়ার নামে অর্থ আত্মসাৎ, গ্রেপ্তার ৩

অনলাইন ডেস্কঃ ব্যাংকে চাকরি দেওয়ার নাম করে অর্থ আত্মসাতকারী প্রতারক চক্রের ৩ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি। সোমবার (৭ মার্চ) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্ততিতে এ তথ্য জানানো হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, রেজাউর রহমান, শাহাজাহান ও কাজী ওহিদুল।

সিআইডি জানায়, একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র সােনালী ব্যাংকসহ বিভিন্ন ব্যাংকে চাকরি দেয়ার নামে প্রার্থীদের প্রতারিত করে অর্থ আত্মসাৎ করে আসছে। এমন সংবাদের প্রেক্ষিতে বিশেষ টিম গতকাল (৬ মার্চ) ঢাকা মহানগরীর খিলগাও এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে চক্রের ৩ সক্রিয় সদস্যকে গ্রেপ্তার করে।

সিআইডি আরও জানায়, প্রথমে সােনালী ব্যাংকে জুনিয়র অফিসার পদে লোক নিয়োগ দেওয়া হবে এবং ওই চাকরির ব্যবস্থা করতে পারবে বলে প্রলােভন দেখায় তারা। এ ক্ষেত্রে পাঁচ লাখ টাকা মাধ্যমে প্রার্থীদের চাকরি পাইয়ে দেয়ার কথা বলে বিশ্বাস স্থাপন করে।

এমনিভাবে মাকসুদ আলমসহ তার ভাগিনা মো. ইনসান এবং তাদের পরিচিত মফিজুর রহমানের কাছ হতে মােট ১২ লাখ ৪০ হাজার টাকা নেয় প্রতারকরা। টাকা নেয়ার গ্যারান্টি হিসাবে এ এস এম রেজাউল রহমান দেখায় তারা।

গত ৫ নভেম্বর ২০২১ সালে বাংলাদেশ ব্যাংকের অধীনে ভাইভা পরীক্ষা হবে বলে উল্লেখ করে প্রতারকরা ভিকটিমদের বাংলাদেশ ব্যাংকের সামনে একটি খাওয়ার হােটেলে বসিয়ে ভাইভা পরীক্ষা নেন। এরপর গত ১ ডিসেম্বর ২০২১ সালে তাদের ৩ জনকে নিয়োগ পত্র দেয়।

ভিকটিমরা সেই নিয়োগ পত্র নিয়ে যােগদানের জন্য গেলে সােনালী ব্যাংক প্রধান কার্যালয় মতিঝিল ভুয়া বলে জানায়। সোনালী ব্যাংকের প্রধান শাখা হতে ভিকটিমরা জানতে পারে যে, আরও ১০-১৫ জন ভুয়া নিযোগ পত্র নিয়ে যোগদান করেতে এসে তারা ফেরত গেছেন।

প্রতারণার শিকার ভিকটিম ও তাদের আত্নীয়স্বজন প্রতারকদের ফোন করে এমন ঘটনা বললে, তারা একেক সময় একেক কথা বলে কালক্ষেপণ করতে থাকে এবং পরবর্তীতে টাকা দিতে অস্বীকার করে।

এ ঘটনায় ভিকটিম মাকসুদ আলমের লিখিত অভিযােগের আলােকে রামপুরা থানায় মামলা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here