সামান্থার বিশেষ বার্তা

0
22
সামান্থার বিশেষ বার্তা
ভারতের দক্ষিণী অভিনেত্রী সামান্থা রুথ প্রভু।

বিনোদন ডেস্কঃ নতুন বছর নতুন ভাবে শুরু করতে চান ভারতের দক্ষিণী অভিনেত্রী সামান্থা রুথ প্রভু। বিবাহ বিচ্ছেদের যন্ত্রণা, বিরহ এসব কিছুকে দূরে সরিয়ে রেখে ২০২২ সালে নিজেকেই নতুন ভাবে পরিচয় করানোর ইচ্ছে তার। তবে এ সবের মধ্যেই সামান্থার এক পোস্ট ঘিরে উত্তাল নেটদুনিয়া।

এরপরই সবার প্রশ্ন, পোস্টটি কি ইঙ্গিতবাহী? নিজের সাবেক স্বামী ও তার পরিবারের উদ্দেশেই কি শেয়ার করেছেন ওই পোস্ট নাকি গোটা ঘটনাই নেহাতই কাকতালীয়। কী এমন পোস্ট শেয়ার করেছেন সামান্থা?

সামান্থার পোস্টে লেখা, “মেয়েকে আকর্ষণীয়ভাবে দেখতে নিষেধ করার চেয়ে নারীকে ভোগ্যবস্তু হিসেবে যেন না দেখে, সেই শিক্ষাই আপনার ছেলেকে দিন। কারণ মেয়েকে আকর্ষণীয় দেখতে নিষেধ করাও তাকে ভোগ্যবস্তু হিসেবে তুলনা করার শামিল।” এই স্ট্যাটাস মনে করিয়ে দিচ্ছে, নাগার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর সামান্থাকে নিয়ে একের পর এক কুৎসা রটানোর কথাই।

ঠিক কী কারণে নাগা ও সামান্থার বিচ্ছেদ হয়েছে সে বিষয়ে মুখ খুলেননি তারা কেউ। নাগা চৈতন্যর ঘনিষ্ঠ সূত্র বলছে, বিয়ের পরেও সামান্থার আইটেম সং ও ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয়ে নাকি চরম আপত্তি ছিল নাগা চৈতন্যের পরিবারের। বিশেষত ‘ফ্যামিলি ম্যান’ ওয়েব সিরিজের দ্বিতীয় সিজনে সামান্থার শয্যা দৃশ্যে নাকি এতটাই অবাক হয়েছিলেন নাগার পরিবার যে সামান্থাকে ‘বিশ্বাসঘাতক’ বলেছিলেন তারা।

সামান্থার সাবেক শ্বশুর তথা নাগার বাবা নাগার্জুনও নাকি সামান্থার এমন দৃশ্যে অভিনয়ের ঘোরতর বিরোধী ছিলেন। অন্যদিকে সামান্থা শ্বশুরবাড়ির এই নিয়ন্ত্রণ মেনে নিতে না পারাতেই নাকি সম্পর্কের অবনতি হয়, যা গড়ায় বিচ্ছেদে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here